1. muktad@banglarpata.com : Muktad Hossain : Muktad Hossain
  2. info@banglarpata.com : tarikulceo :
শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ০৯:৩৫ পূর্বাহ্ন

আশুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের উদ্যোগে রমজানের ইফতার সামগ্রী ও কাঁচা বাজার বিতরণ

  • Update Time : মঙ্গলবার, ৫ মে, ২০২০
  • ৯৬ Time View

 

মোঃ নজরুল ইসলাম

আশুলিয়া ইউনিয়নে করোনার প্রাদুর্ভাবে কর্মহীন হয়ে পড়া অগনিত মানুষের মাঝে লাগাতার ত্রান বিতরন করেই চলেছেন আশুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক আনোয়ার হোসেন মন্ডল ও যুগ্ন আহবায়ক রাসেল মাদবর সাথে যুক্ত আছেন হাজী মোশারফ হোসেন
তারা ত্রান বিতরন করে চলেছেন সকল শ্রেনী পেশার মানুষের জন্য।

তবে তারা আজ হাজির হয়েছেন ভিন্ন রকম বাজার নিয়ে,তাদের চিন্তা চেতনা শুধু চাউল ডাল আলু পেঁয়াজ দিলে হবেনা,দিতে হবে মানুষের মাঝে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য কাঁচা বাজার,সাথে ইফতার সামগ্রী।তারই ধারাবাহিকতায় আজ০ ৫/০৫/২০২০ মঙ্গলবার কাঠগড়া স্কুল মাঠ সংলগ্নে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বিরামহীন ভাবে বিতরণ করলেন নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য কাঁচা বাজার ও ইফতার সামগ্রী।বিতরনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহবায়ক মোঃ কবির হোসেন সরকার বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন আশুলিয়া থানা যুবলীগের ও যুগ্ম আহ্বায়ক মইনুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন ইয়ারপুর ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক মোহাম্মদ নুরুল আমিন সরকার মাহবুব সরকার আশুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মোহাম্মদ জাহিদ হোসেন সহ সকল সদস্যগণ।
মোঃ কবির হোসেন সরকার বলেন, করোনার প্রাদুর্ভাবে কর্মহীন হয়ে পড়ায়, হতদরিদ্র মেহনতী মানুষের ও মধ্যবিত্ত পরিবারের পাশে আশুলিয়া থানা যুবলীগ স্বতঃস্ফূর্তভাবে, মহামারী পরিস্থিতি যতদিন থাকবে। ত্রাণ সামগ্রী অব্যাহতভাবে বিতরণ করে যাবে ইনশাল্লাহ। আপনারা সরকারের নির্দেশনা মেনে চলুন যুবলীগ আপনাদের পাশে আছে থাকবে ইনশাল্লাহ।

শুধু আশুলিয়া ইউনিয়নের নয় তারা ত্রাণ বিতরণ করে চলেছেন সকল কর্মহীন মানুষের মাঝে। দুস্ত মানুষের ত্রাণ আর্তনাদ তাদের কানে পৌঁছানোর সাথে সাথে।তারা ছুটে চলেন অসহায় নিপীড়িত মানুষের পাশে।
তারা ত্রান সামগ্রী দিয়েছেন। মসজিদের ইমাম,মুয়াজ্জীন,সহ অসংখ্য মুসল্লীদের। তারা ত্রান সামগ্রী দিয়েছেন, ভ্যান চালক,রিকশা চালক,অটোরিকশা চালক, পিকাপ ড্রাইভার, ট্যাক্সি চালিত শ্রমিকদের ত্রান দিয়েছেন। কর্মহীন মানুষের মাঝে ত্রান দিয়েছেন। মধ্যবৃত্ত পরিবারের মধ্যে ত্রান দিয়েছেন, আওয়ামী লীগের অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মাঝে ত্রান দিয়েছেন। বিরুধী দলের সকল নেতাকর্মীদের মাঝে ত্রান দিয়েছেন। তারা সর্ব দলীয় জনগনকে এান দিয়েছেন। তারা কখনো কোনো ন্যাশনাল আইডি কারো নিকট চায় নাই। তারা কখনো দেখেনি সে কোন গ্রামের, কোন ওয়ার্ডের,কোন ইউনিয়নের,কোন থানার, কোন জেলার, তারা বলেছেন এখন মানুষ বিপাকে আছেন,এখন রাজনীতি করার সময় নয়। এখন মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সময়। ত্রান দিয়েছেন অগনিত কারখানা শ্রমিকদের।

তারা ত্রান দিয়েছেন প্রতিবন্ধীদের। তারা ত্রান দিয়েছেন আশুলিয়া থানার অলি গলির সকল সেক্টর সকল জায়গায়। তাদেরই ত্রান পেয়েছন সংবাদকর্মীরাও।, তাদেরই ত্রান পেয়েছেন অগনিত পথশিশুরা,তাদেরই সহযোগিতা পেয়েছেন বিভিন্ন জেলা থেকে উঠে আসা অগনিত খেটে খাওয়া হতদরিদ্র কর্মহীন মানুষ।

আশুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক আনোয়ার হোসেন মন্ডল ছাত্র জীবনে সত্যকে বুকে লালন করে মিথ্যাকে পরাজিত করে, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেএী শেখ হাসিনার নির্দেশে অনুপ্রানীত হয়ে মানুষের ভালোবাসায় শিক্ত হয়েছেন। তিনি দুস্ত ছাত্র ছাত্রীদের, কন্যাদায় গ্রস্তদের, অসুস্থ রুগিদের, বেকার যুবকদের, সহায় সম্বলহীনদের অগনিত মসজিদ মাদ্রাসা গীর্জা সকল ধর্মীও প্রতিষ্ঠানকে সহযোগিতা দিয়েই চলেছেন।

তিনি বলেন আমি আপনাদেরই আনোয়ার আপনাদের সহোযগিতা,আস্থা,বিশ্বাস,ভালোবাসায় আজ আমি হয়েছি এই জনপদের আওয়ামী যুবলীগ নেতা। জানিনা আপনাদের আস্থার প্রতিদান কতটুকু দিতে পেরেছি বা পারব। তবে আমি চেষ্টাকরি আমার দৃষ্টিকে সবসময় সার্বজনীন পর্যায়ে রাখার।কারন আপনারা প্রত্যেকেই আমার শক্তির উৎস,পরমাত্মীয়। আমি ভীষন ভাবে ঘৃনাকরি কর্তৃত্তের নেতৃত্ব। আমি বিশ্বাসী, উজ্জীবনের নেতৃত্বে। নেতা সত্তা নয় উজ্জবিত সত্তাই আমাকে বেশি আকৃষ্ট করে।
আমি আলোতে মুগ্ধ তবে বিস্মিত নই। আমি বিসম্বিত আলোর উৎস সুর্যে। তেমনি আমি ভালোতে খুঁশি তবে তৃপ্ত নই,আমি তৃপ্ত ভালোর উৎকর্ষে।

জানি করোনার থাবায় হতবিহুল পৃথিবীর ক্রান্তি লগ্নে উপরোক্ত এই কথা গুলো খুব বেশি মানান সই নয়।তবে আপনাদের সাহস দেব শক্তি দেব, আপনারা ভেঙে পড়বেননা আমি আপনাদের পাশে আছি পাশে আছে আশুলিয়া থানা যুবলীগ আশুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ।মনে রাখবেন দুঃখের অমানিশা ভেদ করে সুখের সুর্য্য উদিত হবেই হবে ইনশাআল্লাহ।তিনি আরো বলেন,আমার রাজনৈতিক বিষয় নিয়ে এবং আমার সার্বিক বিষয় নিয়ে,আপনাদের যদি কারো কোন অভিযোগ,অনুযোগ,বা পরামর্শ থাকে।আপনারা নির্দিধায় আমাকে বলতে পারেন।আমি তা আমার সাধ্যমত সমাধানের চেষ্টা করে যাবো ইনশাআল্লাহ।আপনাদের জন্য চব্বিশ ঘণ্টা খোলা রেখেছি আমার মোবাইল ফোন। আপনাদের প্রয়োজনে ফোন করুন।

এই ঐতিহাসিক ত্রাণ বিতরণে আশুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রাসেল মাদবর অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।হতদরিদ্রও নিপীড়িত মানুষের সর্বক্ষণ পাশেপাশে থেকে সার্বিক ও মানসিকভাবে সহযোগিতা করে চলেছেন।তিনি সকল প্রান্তে সজাগ দৃষ্টি রেখে চলেছেন ইউনিয়নের কোনো মানুষ যেনো কোনো ভাবে কষ্ট নাপায় সে বিষয়ে।

গণমাধ্যমকর্মী মোঃ আকরাম হোসেন বলেন,আশুলিয়ায় ইউনিয়নে যুবলীগের উদ্যোগে,যেপরিমাণ ত্রাণ বিতরণ চলছে আজ পর্যন্ত,এত ত্রান বিতরণ করতে কাউকে আমি দেখিনি।এক কথায় আনোয়ার মণ্ডল ও রাসেল মাদবর এর মত দানবীর এই আশুলিয়ায় আছেন বলে মনে হয়না।জনগণের অভিভাবক হিসাবে সত্যিই তাদের তুলনা করার মত ব্যাক্তি আশুলিয়ায় নাই।

আশুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ রাসেল মাদবর বলেন ইউনিয়ন যুবলীগের জন্য আশুলিয়ার সকল শ্রেনী পেশার মানুষ ধন্য। বিসম্মিত নেই মধ্যবৃত্ত পরিবার গুলোও।সকলের উদ্দেশে বলেন,আপনারা সরকারের নির্দেশনা মেনে চলুন। আমি ও আমরা আছি আপনাদের সাথে। আসুন একে অপরের সহযোগিতা করি, সুখী সুন্দর জীবন গড়ি। নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন। নিজে ভালো

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Customized By BreakingNews